You are here
Home > রাজনীতি > চীনের সাথে কাজ করছি, ভারতের সাথেও: আশরাফ

চীনের সাথে কাজ করছি, ভারতের সাথেও: আশরাফ

Fallback Image

এশিয়ার দুই বৃহৎ শক্তি ভারত-চীন সম্পর্ক শীতল হলেও দেশের উন্নয়নের বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিয়ে উভয় দেশের সাথেই বাংলাদেশ নিবিড়ভাবে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, সবার সঙ্গেই সম্পর্ক রাখতে হবে। একা কোনো কিছুই করা সম্ভব না। সরকার চীনের সঙ্গে যেমন কাজ করছে, তেমনি ভারতের সঙ্গেও কাজ করছে।

শনিবার সকালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিংকে বিদায় জানানোর পর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। দুই দিনের সফরে শুক্রবার ঢাকায় আসেন চীনের প্রেসিডেন্ট। সকালে তিনি ভারতের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন। তিন দশক পরে চীনের কোনো প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফরে করলেন। শি’র সফরে তার ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ উদ্যোগে সমর্থন জানিয়েছে বাংলাদেশ।

চীন-বাংলাদেশ সম্পর্ক প্রতিবেশী ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কে কোনো প্রভাব ফেলবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, চীন এখন পরাশক্তি। এটা মেনে নিতে হবে। এখন পর্যন্ত দেখা গেছে, চীন গঠনমূলক। এখানে চীনকে নিয়ে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই। চীনের সঙ্গে পাঁচ-সাত বছর ধরে সরকার নিবিড়ভাবে কাজ করছে। পশ্চিমা বিশ্ব বলে বেশি, বাস্তবায়ন করে খুবই কম। তবে চীন বাস্তবায়নে খুব তৎপর। কোনো সময়েই ফাঁকি দেয় না।

চীনের প্রেসিডেন্টের দুই দিনের সফর সফল উল্লেখ করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, কত টাকা দিল? কত চাল দিল? কত ডাল দিল? এটা নিয়ে খোঁচাখুঁচি করতে পারেন। বিষয়টা হলো সংযোগ। চীন আমাদের সঙ্গে আছে। এটাই মূল বিষয়। মিয়ানমারের সঙ্গে বিরাজমান সমস্যাগুলো চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কে কোনো প্রভাব ফেলবে কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মিয়ানামার আর বাংলাদেশ এক নয়। এই ভূখন্ড মিয়ানমারের চেয়ে অনেক অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এ ভূখন্ড কেউ অবহেলা করতে পারবে না। প্রয়োজন থেকেই চীন এ ভূখন্ডকে গুরুত্ব দেয়। তিনি আরও বলেন, চীনের সঙ্গে শুধু বাণিজ্য নয়, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, নিরাপত্তা, শিল্প-সাহিত্য- সবকিছুই জড়িত। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো এই অঞ্চলের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা।

বাংলাদেশ এটাকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছে। দীর্ঘদিন পর কমিউনিস্ট চীনের কোনো প্রেসিডেন্টের সফর বাংলাদেশের রাজনীতিতে কতটা প্রভাব ফেলতে পারে- এই প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা এক সিস্টেমে চলে, আমরা এক সিস্টেমে চলি। আমরাও তাদের সিস্টেম নিয়ে সমালোচনা করি না। তারাও আমাদের সিস্টেম নিয়ে সমালোচনা করে না।
এদিকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চীনের প্রেসিডেন্টকে বিদায় জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা। এর আগে শনিবার সকাল নয়টার দিকে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান চীনের প্রেসিডেন্ট।

Similar Articles

Leave a Reply

Top