You are here
Home > জেলার খবর > খুলনা > প্রেমের টানে অস্ট্রেলিয়া থেকে মাগুরায়

প্রেমের টানে অস্ট্রেলিয়া থেকে মাগুরায়

Fallback Image

প্রেমের টানে সুদূর অস্ট্রেলিয়া থেকে মাগুরায় এসে সংসার পেতেছেন আসান ক্যাথরিনা নামের নারী। মাগুরা শহরের কলেজপাড়ার ছেলে কাজী মারুফুজ্জামান চন্দনের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন এই অসি নারী ।

স্বল্প সময়েই মাগুরা ও তার মানুষকে আপন করে নিয়েছেন এই বিদেশিনী। ক্যাথির এই মাগুরাপ্রীতির গল্প এখন সবার মুখে মুখে। তাকে দেখতে ভিড় করছেন অনেকে।

‘এদেশে এসে আমি খুব খুব খুব খুশি হয়েছি। আমি ভাবতেও পারিনি এদেশের মানুষ আমাকে এতটা আপন করে নেবে। আমার স্বামীর পাশাপাশি পরিবারের প্রতিটি সদস্য এমনকি প্রতিবেশীরাও আমাকে নিজের পরিবারের মানুষের মত করেই আদর করছেন।ভালবাসছেন।তাদের আতিথেয়তায় আমি মুগ্ধ। মনেই হচ্ছে না সুদুর অস্ট্রেলিয়া থেকে নিজের পরিবার ছেড়ে আমি

বাংলাদেশের মাগুরা নামের একটি ছোট্ট শহরে এসেছি। আমার স্বামীর পরিবারের পাশাপাশি আত্মিয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব সবাই আমাকে খুব আপন করে নিয়েছে। বিশেষ করে শিশুরা আমাকে তাদের বন্ধুর মত আপন করে নিয়েছে। ওদের সাথে নাচ করেছি, সেলফি তুলেছি। খুব খুব খুব আনন্দ করছি।’

বলছিলেন সুদুর অষ্ট্রেলিয়া থেকে মাগুরায় বাঙ্গালী ঘরের বধু হয়ে আসা ক্যাথরিনা। পারিবারিকভাবে সবাই ওকে ক্যাথি বলেই ডাকে। মাগুরা শহরের কলেজ পাড়ার ছেলে কাজী মারুফুজ্জামান চন্দন সম্প্রতি ক্যাথরিনার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

শনিবার সন্ধ্যায় কলেজ পাড়ায় তার বাসভবনে এক আনন্দঘন পরিবেশে এক বধুবরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এই বিদেশিনী প্রসঙ্গে কাজী মারুফুজ্জামান চন্দন জানান, অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনার সুবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাথির সঙ্গে তার পরিচয় থেকে পরিণয়। তারা দুজনই মেলবোর্নের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক শ্রেণির শিক্ষার্থী। পারিবারিকভাবে সবাই তাকে ক্যাথি বলেই ডাকে। ইতিমধ্যে আনন্দঘন পরিবেশে তারা বধূবরণ অনুষ্ঠানও সেরেছেন। এতে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন।

Similar Articles

Leave a Reply

Top