You are here
Home > জেলার খবর > নকল করতে না দেয়ায়: শিক্ষককে মারধর

নকল করতে না দেয়ায়: শিক্ষককে মারধর

Fallback Image

সএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল করতে না দেয়ায়  মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলায় বিদ্যালয়ের মধ্যে প্রকাশ্যে এক শিক্ষককে মারধর করেছেন কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক।

মঙ্গলবার ইংরেজী ১ম পত্রের পরীক্ষা শেষে দৌলতপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

দৌলতপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে  প্রকাশ্যে শিক্ষক মারপিটের ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী দৌলতপুর বাঁচামারা উচ্চ বিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞানের শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন জানান, মঙ্গলবার এসএসসি ইংরেজী ১ম পত্রের পরীক্ষা ছিল। দৌলতপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ১৮ নং কক্ষে তিনি কক্ষ পরিদর্শক ছিলেন।

তিনি জানান, ওই কক্ষের এক শিক্ষার্থী পাশে পরীক্ষার্থীর খাতা দেখে লেখার দেয়ার সুযোগ চায়। কিন্তু শিক্ষার্থীকে সুযোগ না দেননি ওই শিক্ষক।

ওই শিক্ষক জানান, নকল করতে না দেয়ার জের ধরে পরীক্ষা শেষে দৌলতপুর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিন্টু মোল্লার নেতৃত্বে ১০/১২ জন কেন্দ্রে ঢুকেন।

মিজানুর রহমানের ভাতিজাকে নকল করার সুযোগ না দেয়ার কারণে হল সুপার রেজাউল করিমের সামনে তাকে মারধর করেন বলে তিনি জানান।

এই ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করেন শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন। এরপর সন্ধ্যায় মিজানুর রহমান মিন্টু মোল্লাকে প্রধান আসামি করে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন তিনি।

এব্যাপারে পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি নিন্দনীয়। এই অপকর্মের দায়-দায়িত্ব কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম নিবে না। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দৌলতপুর থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, মারধরের ঘটনায় শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Similar Articles

Leave a Reply

Top