You are here
Home > রাজনীতি > “খালেদা জিয়া নিরপেক্ষ নির্বাচন চান না “…

“খালেদা জিয়া নিরপেক্ষ নির্বাচন চান না “…

থ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নির্বাচিত সরকার থেকে আরেক নির্বাচিত সরকারের মাঝখানে অনির্বাচিত সরকার গঠনের প্রস্তাব নির্বাচন বানচাল করা, গণতন্ত্র ধ্বংস ও সংবিধানকে সঙ্কটে ফেলার প্রস্তাব। এই প্রস্তাব গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপির বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘শিশু জন্মেছে মাত্র, তার বোলই ফুঠলো না, ওই শিশু ফেরেশতা না শয়তান- এই মন্তব্য করাটা এখনই ঠিক নয়।’

ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা যাচাইবাছাই কার্যক্রমে যোগ দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া নির্বাচন কমিশনকে উসিলা করে অজুহাত খুঁজছেন পরিস্থিতি অস্বাভাবিক করার জন্য। তার উদ্দেশ্য একটা অস্বাভাবিক সরকার প্রতিষ্ঠা করা। উনি ভাবছেন ওই সরকার আসলে যুদ্ধাপরাধী, জঙ্গিবাদী ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে রক্ষা করতে পারবেন। চুরি দুর্নীতির মামলা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারবেন।

বিএনপি গত নয় বছর ধরে নির্বাচনী পদ্ধতি মানছে না অভিযোগ করে জাসদ নেতা বলেন, খালেদা জিয়া ১৯৯৬, ২০০৮ সালের নির্বাচন মানেননি। নির্বাচনে জিতে শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা এবং এস এম কিবরিয়া ও আহসান উল্লাহ মাস্টারকে হত্যা করেছে। প্রতিপক্ষকে শারীরিকভাবে নিশ্চিহ্ন করে ফেলতে নির্যাতন চালিয়েছে।

খালেদা জিয়া নিরপেক্ষ নির্বাচন চান না দাবি করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কোনো নিরপেক্ষ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান না। তিনি নির্বাচনকে বানচাল করতে চান। কারণ তিনি ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করার চক্রান্তে, ক্ষমতাকে রাজাকারদের স্বার্থে এবং যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে ব্যবহার করার অপচেষ্টায় লিপ্ত।

নির্বাচন কমিশন নিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন কমিশন কর্মকর্তারা সৎ ব্যক্তি। সবাই ভালো মানুষ, অবিতর্কিত ব্যক্তি। তারা সবার কাছে গ্রহণযোগ্য।

নির্বাচন কমিশনকে শিশুর সঙ্গে তুলনা করে তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘শিশু জন্মেছে মাত্র, তার বোলই ফুঠলো না, ওই শিশু ফেরেস্তা না শয়তান এই মন্তব্য করাটা এখনই ঠিক নয়।’

এসময় কেন্দ্রীয় জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপনসহ জেলা জাসদের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Similar Articles

Leave a Reply

Top