You are here
Home > ক্যাম্পাস > জাবির গ্রেপ্তার শিক্ষার্থীদের আদালতে পাঠিয়েছে আশুলিয়া থানার পুলিশ।

জাবির গ্রেপ্তার শিক্ষার্থীদের আদালতে পাঠিয়েছে আশুলিয়া থানার পুলিশ।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৩ জন শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠিয়েছে আশুলিয়া থানার পুলিশ।

ভাঙচুর ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মামলায় ওই শিক্ষার্থীদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আজ রোববার তাদের ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১২ জন ছাত্রী। বাকিরা ছাত্র।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, গতকাল শনিবার রাতে ওই ৪৩ জন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হবে।

পুলিশি হামলার জের ধরে গতকাল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর চালান শিক্ষার্থীরা। এ সময় সেখান থেকে ৪০-৪৫ জন শিক্ষার্থীকে আটক করে আশুলিয়া থানার পুলিশ।

গত শুক্রবার ভোরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলসংলগ্ন সিঅ্যান্ডবি এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নাজমুল হাসান ও মেহেদি হাসান নামের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের বিচার দাবি, নিহত শিক্ষার্থীদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান, গতিরোধক ও পদচারী-সেতু (ফুটওভারব্রিজ) নির্মাণসহ আরও কয়েকটি দাবিতে গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকসংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এর ফলে মহাসড়কে পাঁচ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। অবরোধ চলাকালে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে পুলিশ। এতে সাংবাদিক, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন।

পুলিশি হামলার ঘটনার জের ধরে বিকেলে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে তারা উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর চালান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা গতকাল রাতে জানান, শিক্ষক লাঞ্ছনা, ভাঙচুর ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বাদী হয়ে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

মহাসড়কে যানবাহন চলাচলে বাধা ও কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পুলিশও একটি মামলা করেছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আজ সকাল ১০টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গতকাল রাতে এক জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মেনে আজ সকাল থেকে হল ছাড়তে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

Similar Articles

Leave a Reply

Top