You are here
Home > প্রবাস > সৌদি আরবে আর থাকছে না প্রবাসীদের খুচরা ব্যবসার সুযোগ

সৌদি আরবে আর থাকছে না প্রবাসীদের খুচরা ব্যবসার সুযোগ

সৌদি আরবে ভিনদেশীদের মুদি দোকান ও মিষ্টান্নের দোকান সহ অন্যান্য ভোগ্যপণ্যের ব্যবসা করার সুযোগ আর থাকছে না। প্রবাসীদের এসব ব্যবসা বন্ধের খসড়া প্রস্তুত করছে দেশটির শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রনালয় (এমএলএসডি)।

এখন থেকে এসব দোকান শতভাগ সৌদি নাগরিকদের মালিকানায় পরিচালিত হবে বলে মন্ত্রনালয়ের সূত্রের বরাত দিয়ে দৈনিক আল-মদিনা সংবাদ প্রকাশ করেছে। সূত্র জানিয়েছে, এই সিদ্ধান্তের ফলে চলতি বছরেই নতুন করে ২০ হাজার সৌদি নাগরিকের কাজের সুযোগ তৈরি হবে।

এছাড়া খাদ্য এবং কোমল পানীয় বহনকারী ভ্যানগুলোও সৌদি নাগরিকদের জন্য নির্দিষ্ট করার কথা ভাবছে মন্ত্রনালয়। এর ফলে আরও ৬ হাজার মানুষের কাজের সুযোগ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

মূলত সৌদি নাগরিকদের কাজের সুযোগ বৃদ্ধিতে সৌদি সরকার এসব সিদ্ধান্তসহ নতুন আরও বেশকিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সৌদি গেজেট জানিয়েছে, সম্প্রতি দেশটির শূরা পরিষদ ছোট ছোট দোকান বন্ধ করে বড় দোকান খোলার ছাড়পত্র দিতে শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রনালয় এবং পৌর ও গ্রামীণ বিষয়ক মন্ত্রনালয়কে জানিয়েছে। এর ফলে সৌদি নারী-পুরুষদের একটি বড় অংশের কাজের সুযোগ হবে বলে শূরা পরিষদ উল্লেখ করে। এসব কর্মকান্ড দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি কর্মক্ষেত্র বৃদ্ধি করবে বলে তারা মনে করে।

সূত্র জানিয়েছে- মন্ত্রনালয় ইতোমধ্যে মোবাইল মেরামত, রক্ষণাবেক্ষণ এবং বিক্রির ক্ষেত্র সৌদি নাগরিকদের জন্য বাধ্যতামূলক করে ৮ হাজারের বেশি নারী-পুরুষের কাজের সুযোগ করে দিয়েছে। এছাড়া গাড়ি ভাড়া দেয়া অফিসসমূহে কাজ নির্দিষ্টকরণ করে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে মন্ত্রনালয়ের আশাবাদ।

অন্যদিকে মন্ত্রনালয় হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রের জন্য সাড়ে সাত হাজার সৌদি চিকিৎসক, নার্স এবং প্রযুক্তিবিদদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। এছাড়া ২০২০ সালের মধ্যে ৯৩ হাজারের বেশি সৌদি নাগরিকের কাজের সুযোগ হবে বলে জানা গেছে।

সৌদি সরকার গত বছর সরকারি পর্যায়ে এক লাখ ৪২ হাজার এবয় বেসরকারি পর্যায়ে এক লাখ ৪২ হাজার ভিসা অনুমোদন দেয়। এছাড়া গৃহকর্মী নিয়োগের জন্য দেয়া হয় প্রায় এক লাখ ১৭ হাজার ভিসা।

সরকারি পরিসংখ্যান মতে, প্রায় সাড়ে ১৮ হাজার প্রতিষ্ঠান এবং সংস্থা মজুরি সুরক্ষা কার্যক্রম বাস্তাবয়ন করেছে। এদের মধ্যে কেবল ৪১ শতাংশ প্রতিষ্ঠান এবং সংস্থা তা বাস্তাবয়নে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিল।

Similar Articles

Leave a Reply

Top