You are here
Home > ক্যাম্পাস > বিদায়: বৈশাখী আয়োজন: নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়!

বিদায়: বৈশাখী আয়োজন: নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়!

সানজিদা সুলতানা:  চৈত্র-সংক্রান্তির সূর্যাস্তের মধ্য দিয়েই উদিত হবে বৈশাখীর প্রথম সূর্যোদয়। আর সমস্বরে সবাই গেয়ে উঠবে “এসো হে বৈশাখ, এসো এসো”। পুরোনো বছরকে বিদায় জানিয়ে যাত্রা শুরু হবে নতুন আরো একটি বছরের। আর এ উপলক্ষে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এগিয়ে চলছে নানা আয়োজন। কয়েক সপ্তাহ ব্যাপী চারুকলা বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং সংশ্লিষ্ট সকলের কর্মোদ্যমে আয়োজনমালার প্রস্তুতি এখন প্রায় শেষ পর্যায়ে। বৈশাখী আয়োজনে থাকছে চৈত্র-সংক্রান্তিতে নৃত্যপালা,ফানুস উৎসব। তবে বৈশাখীর প্রধান এবং নিয়মিত আয়োজনে আছে “মঙ্গল শোভাযাত্রা”। শোভা যাত্রায় থাকছে শতফুট দীর্ঘ কুমীর, মোরগ, পেঁচা সহ রকমারি অসংখ্য মুখোশ। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের উদ্যোগে প্রথম বৈশাখী শোভাযাত্রা শুরু হয় বাংলা ১৪১৭ সালে। চারুকলার প্রথম ব্যাচের স্বল্পসংখ্যক শিক্ষার্থী আর শিক্ষকদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও চেষ্টায় আয়োজিত হয় সেই শোভাযাত্রাটি। এখন বেড়েছে শিক্ষক আর ছাত্রছাত্রীর সংখ্যাও। সাথে বেড়েছে বৈশাখীর নানা ব্যস্ততাও। এছাড়াও শোভাযাত্রার নানান আয়োজনের সাথে বেঁজে উঠবে ঢোল আর ঢাক। এবারের শোভাযাত্রার শিরোনাম “মানুষ ভজলে সোনার মানুষ হবি”। শিরোনামের সাথে তাল মিলিয়ে না হয় বলি, মানুষ ভজনের সাথে সাথে বাংলার শিল্প ও সংস্কৃতির প্রকৃত ভজন বেঁজে উঠুক এ শোভাযাত্রায়। সেই সাথে প্রতিটি বাঙালী নিজেদের রাঙিয়ে নেক শুদ্ধ বাঙালি-সত্ত্বায়। এটিই প্রত্যাশিত।

Similar Articles

Leave a Reply

Top